1. abusayedatnkh@gmail.com : Abu Sayed : Abu Sayed
  2. admin@www.palashtv.com : Palash TV :
অবশেষে বাকেরগঞ্জে শ্রীমন্ত খাল দখলমুক্ত ও পুনঃখনন কাজ শুরু করেছে পৌরসভা - SM PALASH
বুধবার, ২৯ জুন ২০২২, ১০:৪৪ অপরাহ্ন

অবশেষে বাকেরগঞ্জে শ্রীমন্ত খাল দখলমুক্ত ও পুনঃখনন কাজ শুরু করেছে পৌরসভা

প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত: শুক্রবার, ৮ এপ্রিল, ২০২২
  • ৩৬ বার পড়া হয়েছে

 

বাকেরগঞ্জ সংবাদদাতা॥ বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলার পৌর এলাকার পানি নিষ্কাশনের জন্য শ্রীমন্ত নদী অবৈধ দখল মুক্ত করে পুনঃখনন কাজ শুরু করেছে পৌর কর্তৃপক্ষ। শুক্রবার (৮ এপ্রিল) বাকেরগঞ্জ বাস স্টান্ড ব্রীজ সংলগ্ন পৌর কাচাঁবাজারের দক্ষিণ পাশে শ্রীমন্ত নদী পুনঃখনন ও অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ কাজ শুরু করা হয়। কাজ শুরুতেই বাকেরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক ও পৌর মেয়র লোকমান হোসেন ডাকুয়া উপস্থিত থেকে সঠিক ভাবে কাজ করার নির্দেশনা দেন।

এ সময় মেয়র বলেন, পৌর এলাকার জলাবদ্ধতার প্রধান কারণ হচ্ছে অবৈধ ভাবে শ্রীমন্ত নদী দখল। আবর্জনা ও পলিমাটিতে ভরাট হয়ে মরা নদী পরিণত হয়েছিল শ্রীমন্ত নদী। অনেক স্থানে জোয়ার-ভাটার পানি আসা-যাওয়া বন্ধ ছিল। এতে নদীর পাশে আবাদি অনেক জমি জলাবদ্ধতায় অনাবাদি হয়ে পড়েছে। পৌর শহর সহ উপজেলার কয়েকটি ইউনিয়নের নাগরিকদের ভোগান্তি লাঘবে পৌরসভা ও এলজিইডি’র সমন্বিত প্রচেষ্টায় নদী দখলমুক্ত করে পুনঃখননের কাজ শুরু করা হয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, বাকেরগঞ্জ পৌর এলাকা থেকে কালিগঞ্জ বাজার হয়ে নিয়ামতি পর্যন্ত বিশখালী নদীতে মিশছে এ অঞ্চলে নৌপথে যোগাযোগের অন্যতম মাধ্যম এই শ্রীমন্ত নদী। নদীটির দখল ও দূষণ রোধ করে সংস্কারের উদ্যোগ নেওয়ায় বাকেরগঞ্জ পৌরবাসী মেয়র লোকমান হোসেন ডাকুয়ার প্রসংসা করেন।

পৌর কাউন্সিলর খন্দকার জিয়াউর রহমান রিপন জানান, বাকেরগঞ্জ পৌর এলাকার প্রাণ কেন্দ্র থেকে শ্রীমন্ত নদী বয়ে গেছে। শ্রীমন্ত নদীটি র্দীঘদিন খড়স্রোতা ছিল। তবে সেই নদী অবৈধ দখল মুক্ত করে পুনঃখনন করা হচ্ছে নদীটি তার পূর্ণরুপ ফিরে পাবে। পৌরসভার ১নং ও ২নং ওয়ার্ডের বাসস্ট্যান্ড ব্রিজের পশ্চিম ও পূর্ব পাশের দুই শতাধিক অবৈধ দোকানপাট ও পাকা স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান চলছে। এ ছাড়াও থানা ব্রিজ থেকে শুরু করে ৪ কিলোমিটার নদী পুনঃখনন করা হবে। মেয়র পৌর এলাকার অংশে নদীর দুই পাশে ব্লক ফেলে সৌন্দর্য বর্ধন করেছেন। বাকেরগঞ্জ পৌর শহরের সৌন্দর্য বর্ধন করার লক্ষে সংস্কারও করবেন বলে জানান তিনি।

স্থানীয়দের তথ্যমতে, নদীটি দখল মুক্ত করে পুনঃখনন করা হচ্ছে নদীতে লঞ্চ, ট্রলার ও নৌকা চলাচল শুরু হলে এ অঞ্চলে বাণিজ্যের জন্য অন্যতম নদীপথ হবে শ্রীমন্ত নদী। এই নৌ পথে পশ্চিমাঞ্চলে মোল্লারহাট, পাথরঘাটা, বগুড়া, চান্দুখালী, মির্জাগঞ্জ, সুবিতখালী, বেতাগীসহ বিভিন্ন স্থানে চলাচল করা যাবে নির্বিঘ্নেই। এমন সাহসী উদ্যোগ নেয়ার জন্য মেয়র লোকমান হোসেন ডাকুয়াকে সাধুবাদ জানায় উপজেলাবাসী।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি